রবিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০০৮

খ্যাত বাঙালি

=============================
সবটা ঠিক ঠিক পড়তে হলে সংগে দেওয়া লিংক থেকে ফন্ট ফ্রি ডাউনলোড করে নিতে৤  
অবাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য
বিনামূল্যে বাংলা ইউনিকোড ফন্ট সরাসরি ডাউনলোড করুন নিচের এই লিংকে ক্লিক করে৤


অবাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য
উন্নত বাংলা ফন্ট   ‘অহনলিপি-বাংলা১৪’
https://sites.google.com/site/ahanlipi/font-download/AhanLipi-Bangla14.zip



অহনলিপি-বাংলা১৪ ডিফল্ট ইন্টারনেট সেটিং
(AhanLipi-Bangla14 Default Internet setting)

(Default font setting ডিফল্ট ফন্ট সেটিং)

on internet(Mozilla Firefox)
(top left) Tools  
              Options > contents
              Fonts & Colors
              Default font:=AhanLipi-Bangla14
                        Advanced...
                                    Fonts for: =Bengali
                                    Proportional = Sans Serif,   Size=20
                                    Serif=AhanLipi-Bangla14
                                    Sans Serif=AhanLipi-Bangla14
                                    Monospace=AhanLipi-Bangla14,  Size=20
                                    -->OK
            Languages
            Choose your preferred Language for displaying pages
            Choose
            Languages in order of preference
            Bengali[bn]
            -->OK
  --> OK

          এবারে ইন্টারনেট খুললে ‘অহনলিপি-বাংলা১৪’ ফন্টে সকলকিছু দেখা যাবে৤ নেটে একই ফন্টে সব কিছু লেখাও যাবে৤





যুক্তবর্ণ সরল গঠনের৤ ‎
বুঝতে লিখতে পড়তে সহজ৤ ‎

=============================





ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসগার

জন্ম:২৬সেপ্টেম্বর ১৮২০/বাংলা:১২ আশ্বিন ১২২৭
মৃত্যু: ২৯জুলাই ১৮৯১/বাংলা:১৩ শ্রাবণ ১২৯৮
আয়ু -- ৭২ বছর



রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
জন্ম : ২৫বৈশাখ, ১২৬৮/৭মে, ১৮৬১
মৃত্যু : ২২শ্রাবণ, ১৩৪৮/৭আগস্ট, ১৯৪১
আয়ু--- ৮০ বছর তিন মাস


====================



খ্যাত বাঙালি

জন্মসাল অনুসারে

নোট: প্রথম শতাব্দী =১ থেকে ১০০,


দ্বিতীয় শতাব্দী=১০১ থেকে ২০০খ্রিস্টাব্দ অবধি৤

তৃতীয়=২০১-৩০০খ্রিঃ৤

যে শত-বছরে শতক শেষ হয় সেটাই সেই শতাব্দী৤


০০০খ্রিস্টাব্দ__

১০০খ্রিস্টাব্দ__

২০০খ্রিস্টাব্দ__

৩০০খ্রিস্টাব্দ__

৪০০খ্রিস্টাব্দ__

৫০০খ্রিস্টাব্দ__

৬০০খ্রিস্টাব্দ__
শশাঙ্ক(সপ্তম শতাব্দীর সূচনায়) বাঙালি ছিলেন কিনা তা নিয়ে মতভেদ আছে৤বঙ্গদেশের স্বাধীন সার্বভৌম রাজা৤ গুপ্ত সাম্রাজ্য ভেঙে পড়ার পরে তিনি স্বাধীন রাজা হন৤ মুর্শিদাবাদের কর্ণসুবর্ণ ছিল তাঁর রাজধানী৤ রাজা হর্ষবর্ধনের সঙ্গে রাজা শশাঙ্কের সাথে যুদ্ধ হয়৤ হিউয়েন-সাং সে সময়ে ভারতে আসেন৤ সম্ভবত শৈব ছিলেন, বৌদ্ধদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো ছিল না৤

৭০০খ্রিস্টাব্দ__

৮০০খ্রিস্টাব্দ__

৯০০খ্রিস্টাব্দ__
শ্রীধর আচার্য(● দশম শতক ●) পাটিগণিত, বীজগণিতের পণ্ডিত ও গ্রন্থকার৤


অতীশ দীপঙ্কর(অনুমান ৯৮০-১০৫৩)[৭৩][শ্রীজ্ঞান অতীশ দীপঙ্কর]তিব্বতে যান ও বৌদ্ধ ধর্ম সংস্কার করেন ও গ্রন্থ রচনা করেন৤

১,০০০খ্রিস্টাব্দ__

১১০০খ্রিস্টাব্দ__
জীমূতবাহন(আনুমানিক ১১০০-১১৫০)[৫১] ‘হিন্দু কোডবিল’ চালু হবার আগে অবধি তাঁর রচিত ‘দায়ভাগ’ নামে গ্রন্থ অনুসারে হিন্দুদের উত্তরাধিকার নির্ধারিত হত৤


বল্লাল সেন(আনুমানিক ●-১১৭৯) রাজত্ব আঃ ১১৫৮-৬৯, পণ্ডিত, পূর্বের বৌদ্ধ ধর্ম থেকে হিন্দু ধর্মের পুনরুজ্জীবনকারী,কুলীন প্রথার প্রবর্তক৤পুত্র লক্ষ্মণ সেন৤ 


লক্ষণ সেন(জন্ম আনুমানিক ১১১৯--●) ৬০ বছর বয়সে(১১৭৮-৯ খ্রিঃ) সিংহাসন আরোহন৤ মুসলিম অভিযানের আগে বাংলার শেষ রাজা৤ বল্লাল সেনের ছেলে৤ ১৮ অশ্বারোহী সৈন্য নিয়ে বখতিয়ার খলজির আক্রমণে (আনুঃ ১২০০-১২০৫) নবদ্বীপ থেকে পূর্ববঙ্গে পলায়ন, ৮০বছরের বেশি বয়সে৤ সেখানে কিছুদিন তাঁর রাজত্ব ছিল৤ জয়দেব তাঁর সভাকবি৤

১২০০খ্রিস্টাব্দ__

১৩০০খ্রিস্টাব্দ__

১৪০০খ্রিস্টাব্দ__
কৃত্তিবাস ওঝা(জন্ম চৈতন্যদেবের আগে [চৈতন্যদেব ১৪৮৬-১৫৩৩[৪৮]]) আদি কবি, রামায়ণের বাংলা অনুবাদক৤
হরিদাস ঠাকুর(১৪৫৩-১৫৩৩)[৮১] যবন হরিদাস শ্রীচৈতন্যের শিষ্য৤ হিন্দু হলেও শৈশবে অনাথ হয়ে মুসলমান ঘরে প্রতিপালিত৤ 


নিত্যানন্দ(১৪৭৩-১৫৪৫)[৭৩] শ্রীচৈতন্যের প্রধান পার্ষদ৤
চৈতন্যদেব(১৪৮৬-১৫৩৩)[৪৮] বৈষ্ণব ধর্মের প্রচারক৤
রূপ গোস্বামী(১৪৮৯-১৫৬৪)[৭৬] শ্রীচৈতন্যের অনুগামী, ও গৌড়ীয় বৈষ্ণব ধর্মের সিদ্ধান্ত নির্ণয়কারী বৃন্দাবনের বড় গোস্বামীর অন্যতম৤
রঘুনন্দন(১৪৯৫-১৫৮৫)[৯১] শ্রীচৈতন্য পরিকর৤
কেশবভারতী(পঞ্চদশ শতকের দ্বিতীয়ার্ধে) শ্রীচৈতন্যদেকে ১৫১০খ্রিঃ,২৬জানুয়ারি দীক্ষা দেন৤
বিজয় গুপ্ত(● --১৪৯৪-- ●) হুসেন শাহের আমলে ১৪৯৪খ্রিঃ মনসামঙ্গল রচনা করেন৤
বিপ্রদাস পিপলাই(● --১৪৯৫-- ●) মনসামঙ্গল রচনাকার ১৪৯৫৤

১৫০০খ্রিস্টাব্দ__
গোবিন্দদাস(১৫০৮ - ●) শ্রীচৈতন্যের পার্শ্বচর৤
জীব গোস্বামী(আনুমানিক ১৫১০-১৬০০)[৯১] গৌড়ীয় বৈষ্ণব সম্প্রদায়ের ছয় গোস্বামীর একজন৤
কৃষ্ণদাস কবিরাজ(আনুমানিক ১৫৩০-১৬১০)[৮১] ‘শ্রীচৈতন্য চরিতামৃত’ রচনাকার৤
কেদার রায়(ষোড়শ শতকের শেষ ● -- ১৬০৩) বারো ভুঁইঞার একজন৤
কবিকঙ্কণ মুকুন্দরাম চক্রবর্তী(●--● পৃষ্ঠপোষক রাজা রঘুনাথ রায়, রাজত্ব ১৫৭৩-১৬০৬) কবি৤ চণ্ডীমঙ্গল কাব্যের রচয়িতা৤
দৌলত কাজি(আনুমানিক ১৫৮০-১৬৩৮)[৫৯] বাঙালি, আরাকান রাজসভার কবি৤

১৬০০খ্রিস্টাব্দ__
কাশীরাম দাস৤ জন্ম আনুমানিক সপ্তদশ শতাব্দীর সূচনায়৤ মহাভারতের বাংলা অনুবাদক৤
কেতকাতদাস ক্ষেমানন্দ(সপ্তদশ শতাব্দী) মঙ্গলকাব্য রচয়িতা৤
আলাওল(আনুমানিক ১৬২৫)[ছদ্মনাম,আসল নাম অজ্ঞাত]বাঙালি, আরাকান রাজসভার মুসলিম কবি৤
আলিবর্দি খাঁ(১৬৭৬-১৭৫৬)[৮১]বাংলার নবাব৤পূর্বপুরুষ আরব৤

১৭০০খ্রিস্টাব্দ__
মুর্শিদকুলি খাঁ(●--১৭২৭) সুবে বাংলা-বিহার-ওড়িশার সুবেদার৤ ১৭০৯-এ ঢাকা থেকে রাজধানী মুকসুদাবাদ আনেন, তাঁর নামে সেটাই পরে মুর্শিদাবাদ৤
আউলচাঁদ(আনুমানিক অষ্টাদশ শতকের গোড়ায়)কর্তাভজা সম্প্রদায়ের আদিগুরু৤
মহারাজ নন্দকুমার(●- ১৭৭৫) ইংরেজের বিরুদ্ধে যোদ্ধা, তাই মিথ্যা অজুহাতে তাঁকে ফাঁসি দেওয়া হয়৤
গোপাল ভাঁড়(আনুমানিক অষ্টাদশ শতকের শুরু) নদীয়ার রাজা কৃষ্ণচন্দ্র রায়ের (১৭১০-৮০[৭১]) সভাবিদূষক৤
কৃষ্ণচন্দ্র রায়(১৭১০-৮০)[৭১] নদীয়ার রাজা, গুণগ্রাহী৤ ভারতচন্দ্র তাঁর সভাকবি৤ গোপাল ভাঁড় তাঁর সভাবিদূষক৤
ভারতচন্দ্র রায়(১৭১২-৬০)[৪৯] বাংলাভাষার অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবি৤
রানি ভবানী(১৭১৪-৯৩)[৮০] রাজশাহি জেলার নাটোরের জমিদার রাজা রামকান্ত রায়ের বিধবা স্ত্রী৤ দানী৤ জমিদারির বার্ষিক আয় দেড়কোটি টাকা৤ সিরাজের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ায় পলাশির যুদ্ধে ইংরেজ পক্ষে যোগদেন৤
রামপ্রসাদ সেন(১৭২০-৮১)[৬২] সাধক কবি৤
লোকনাথ ব্রহ্মচারী[ঘোষাল](আনুমানিক ১৭৩১-●-১৮৯০ আনুমানিক)[১৬০ ?] সাধক ধর্মপ্রচারক৤
হাজি মহম্মদ মহসিন(১৭৩২-১৮১২)[৮১] ধর্মপ্রাণ, দাতা৤
মহারাজ নবকৃষ্ণ(১৭৩৩-৯৭)[৬৫] শোভাবাজার রাজবাড়ির প্রতিষ্ঠাতা৤
নিমাইচরণ মল্লিক(১৭৩৬-১৮৩৭)[১০২]খ্যাত ব্যবসায়ী

হরু ঠাকুর(১৭৩৯-১৮০৯)[৭১] বিখ্যাত কবিয়াল, কোলকাতার শিমলায় জন্ম৤
উইলিয়াম জোনস্(১৭৪৬-৯৪)[৪৯]প্রাচ্যবিদ্যা পণ্ডিত, এশিয়াটিক সোসাইটির স্থাপক৤
কালী মির্জা(১৭৫০-১৮২০)[৭১] সঙ্গীতজ্ঞ৤ 


স্যার চার্লস উইলকিনস্(১৭৫০-১৮৩৮)[৮৯] বাংলা ছাপার জন্য প্রথম বিচল (মুভেব়্ল) হরফ নির্মাতা৤ 

সহায়তা নেন পঞ্চানন কর্মকারের৤ ন্যাথানিয়েল ব্রাসি হ্যালহেড রচিত ইংরেজিতে ‘আ গ্রামার অব বেঙ্গল ল্যাংগোয়েজ’ [১৭৭৮] গ্রন্থে বাংলা হরফে প্রচুর উদাহরণ সেই হরফে ছাপা হয় 

ন্যাথানিয়েল ব্রাসি হ্যালহেড(১৭৫১-১৮৩০)[৮০] ইংরেজ৤ ইংরেজ রাজকর্মচারীদের বাংলা শেখার সুবিধার জন্য ইংরেজিতে ‘আ গ্রামার অব বেঙ্গল ল্যাংগোয়েজ’ [১৭৭৮] লেখেন, বাংলা হরফে প্রচুর উদাহরণ সহ৤ স্যার চার্লস উইলকিনস্ নির্মিত বিচল(মুভে‌ব়্‌ল) হরফে বাংলা ছাপার প্রথম সূচনা হয় এখানে৤
রামদুলাল দে(১৭৫২-১৮২৫)[৭৪]খ্যাত ব্যবসায়ী

রামরাম বসু(১৭৫৭-১৮১৩)[৫৭] বাংলা গদ্য রচনার অন্যতম রূপকার৤
উইলিয়াম কেরি(১৭৬১-১৮৩৪)[৭৪] ভারতবন্ধু, বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিকাশের দূত৤
মৃত্যুঞ্জয় বিদ্যালঙ্কার(জন্ম আনুমানিক ১৭৬২-১৮১৯)[৫৮] চট্টোপাধ্যায় সুপ্রিম কোর্টের জজ পণ্ডিত, ফোর্ট উইলিয়াম কলেজের প্রধান পণ্ডিত, রামমোহনের আগে বাংলা গদ্য রচনা করেন৤ সতীদাহের বিরুদ্ধে ছিলেন৤ লালন ফকির(১৭৭২/৪ -- ১৮৮১/৯০)[১০৭] প্রখ্যাত গীতিকার ও সুফিসাধক৤ দার্শনিক চিন্তাবিদ৤
রামমোহন রায়(১৭৭৪-১৮৩৩)[৬০] শিক্ষা, ধর্ম, সমাজ,আর্থিক ও সংবাদপত্র সংস্কারক যুগ পুরুষ৤ বিধবা বিবাহ রদ ইত্যাদি বহুবিধ কর্মকাণ্ডের নায়ক৤
ডেভিড হেয়ার(১৭৭৫-১৮৪২)[৬৮] শিক্ষাসেবী৤ ব্রিটেনের ঘড়ির ব্যবসায়ী, ভারতে এসে ব্যবসা করে কোলকাতার হিন্দু কলেজ, মেডিক্যাল কলেজ প্রতিষ্ঠায় প্রধান অবদান রাখেন৤
তিতুমির(১৭৮২-১৮৩১)[৫০] প্রকৃত নাম সৈয়দ নিসার আলি৤ বিপ্লবী নায়ক৤
রাধাকান্ত দেব(১৭৮৪-১৮৬৭)[৮৪] কোলকাতার রক্ষণশীল হিন্দু সমাজের নেতা৤ সংস্কৃত ভাষার বিশ্বকোষ ‘শব্দকল্পদ্রুম’ গ্রন্থের লেখক৤
রাম বসু(১৭৮৬-১৮২৮)[৪৩] কবিগান রচয়িতা৤
গঙ্গাকিশোর ভট্টাচার্য(● -- ১৮৩১) প্রথম বাংলা সংবাদপত্র ‘বাঙ্গাল গেজেটি’ ও প্রথম বাংলা ব্যাকরণ Grammar in English and Bengali(১৮১৬) রচয়িতা৤
ভবানীচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়(১৭৮৭-১৮৪৮)[৬২] লেখক, রক্ষণশীল৤ বিধবাবিবাহ প্রচেষ্টায় বাধা দেন, ডিরোজিওর শিষ্যদের তথা ইয়ংবেঙ্গলদের বিরোধী৤ কলিকাতা কমলালয়, নববাবু বিলাস, নববিবি বিলাস রচনা করেন৤
মতিলাল শীল(১৭৯২-১৮৫৪)[৬৩]খ্যাত ব্যবসায়ী

রানী রাসমনি দেবী(১৭৯৩-১৮৬১)[৬৯] স্বামী জানবাজারের জমিদার রাজচন্দ্র মাড়৤ দক্ষিনেশ্বরের মন্দির তৈরি করেন ও রামকৃষ্ণদেবের প্রতিষ্ঠাদাত্রী৤
দ্বারকানাথ ঠাকুর(১৭৯৪-১৮৪৬)[৫৩] সবচেয়ে বড় বাঙালি পথিকৃৎ ব্যবসায়ী৤ ঠাকুর পরিবারের পুরোধা, রবীন্দ্রনাথের ঠাকুরদা(পিতার পিতা)৤ পঞ্চানন কর্মকার(● - ১৮০২) ছেনি কেটে বাংলা ছাপার জন্য প্রথম হরফ তৈরি করেন৤
ভোলা ময়রা(অষ্টাদশ শতকের শেষ●--●উনবিংশ শতকের শুরুতে) কবিগায়ক, মিষ্টির দোকানের মালিক৤

১৮০০খ্রিস্টাব্দ__
গোপাল উড়ে(উনিশ শতকের লোক) সুগায়ক, যাত্রাদলের নট৤
এ্যান্টনি কবিয়াল(● -- মৃত্যু আনুমানিক ১৮৩৬) পর্তুগিজ, কালীভক্ত বাংলাগানের খ্যাত কবিয়াল৤
আশুতোষ দেব(১৮০৫-৫৬)[৫২]ছাতুবাবু নামে বেশি পরিচিত৤ বিদ্যোৎসাহী, নাট্যকার, টপ্পাগান রচয়িতা৤
দাশরথি রায়(১৮০৬-৫৭)[৫২] পাঁচালিকার রূপে খ্যাত৤
হেনরি ভিভিয়ান ডিরোজিও(১৮০৯-৩১)[২৩] বাংলার নবজাগরণের হোতা৤ জীবনকাল মাত্র ২৩ বছর৤
ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত(১৮১২-৫৯)[৪৮] কবি৤
রাধানাথ শিকদার(১৮১৩-৭০)[৫৮]হিমালয়ের এভারেস্ট শৃঙ্গের উচ্চতা নির্ধারণ করেন৤
রেভারেন্ড কৃষ্ণমোহন বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮১৩-৮৫)[৭৩]ডিরোজিওর শিষ্য৤খ্রিস্ট যাজক৤
রামতনু লাহিড়ী(১৮১৩-৯৮)[৮৬] শিক্ষাব্রতী, বিদ্যাসাগরের সহায়ক৤
প্যারীচাঁদ মিত্র(১৮১৪-৮০)[৬৭] টেকচাঁদ ঠাকুর লেখক ও মুক্তচিন্তার মানুষ৤
রেভারেন্ড জেমস লং(১৮১৪-৮৭)[৭৪] বাংলাভাষা ও সাহিত্যের উন্নয়নে বিশেষ যত্নশীল ছিলেন৤ বাংলা প্রবাদ বচন সংগ্রহ তাঁর অন্যতম কীর্তি৤
অবলা বসু(১৮৬৫-১৯৫১)[৮৭]বিজ্ঞানী জগদীশচন্দ্র বসুর সুযোগ্য স্ত্রী৤
মদনমোহন তর্কালঙ্কার(১৮১৭-৫৮)[৪২] শিশুশিক্ষা বইয়ের লেখক, ‘পাখি সব করে রব’ তাঁর লেখা, বিদ্যাসাগরের সঙ্গী আন্দোলনকারী৤ তাঁর নামটা যত প্রাচীন কর্মে ততো আধুনিক৤
দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর(১৮১৭-১৯০৫)[৮৯] ব্রাহ্ম৤ রবীন্দ্রনাথের বাবা৤
রমাপ্রসাদ রায়(১৮১৭-৬২)[৪৬] কোলকাতা হাইকোর্টের প্রথম ভারতীয় বিচারপতি৤ রাজা রামমোহন রায়ের পুত্র৤
শম্ভুনাথ পণ্ডিত(১৮২০-৬৭)[৪৮] কাশ্মীরী পণ্ডিত, কোলকাতায় মানুষ বলে বাঙালি হয়ে যান৤ কোলকাতা হাইকোর্টের প্রথম ভারতীয় বিচারপতি৤
অক্ষয়কুমার দত্ত(১৮২০-৮৬)[৬৭] সাহিত্যসাধক, সমাজসংস্কারক৤ 


ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর(১৮২০-৯১)[৭২] সমাজসংস্কারক, শিক্ষাবিদ,
"বর্ণপরিচয়" লেখক, বাংলা ভাষা সংস্কারক৤বাঙালির জীবনে অক্ষয় বট৤ 
 
রামনারায়ণ তর্করত্ন(১৮২২-৮৬)[৬৫] নাট্যকার৤ ‘কুলীনকুল সর্বস্ব’ তাঁর রচনা৤
রাজেন্দ্রলাল মিত্র(১৮২২-৯১)[৭০] ভারত চর্চার অন্যতম পথিকৃৎ৤
হরিশ্চন্দ্র মুখোপাধ্যায়(১৮২৪-৬১)[৩৮] নির্ভীক ইতিহাসখ্যাত সাংবাদিক৤
মধুসূদন দত্ত(১৮২৪-৭৩)[৫০], ‘মেঘনাদ বধ’ কাব্য রচয়িতা অমর কবি, নাট্যকার৤ অমিত্রাক্ষর ছন্দের স্রষ্টা৤ জমিদার পুত্র, ভিখিরি অবস্থায় মৃত্যু৤ অল্প বয়সে খ্রিস্টান হন৤ ইংরেজির প্রতি আকৃষ্ট, ইংরেজ কন্যাকে বিবাহ৤
রেভারেন্ড লালবিহারী দে(১৮২৪-৯৪)[৭১] শিক্ষাব্রতী, লেখক, সাংবাদিক,যাজক৤ রচনা ‘বেঙ্গল পেজেন্ট লাইফ’৤ দৃষ্টিহীন হওয়ায় শেষ জীবনে কষ্ট পান৤

রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮২৭-৮৭)[৬১] কবি, নাট্যকার৤
ভূদেব মুখোপাধ্যায়(১৮২৭-৯৪)[৬৮] শিক্ষাব্রতী, হিন্দির উন্নয়নে বিশেষ সচেষ্ট হন, হিন্দি সর্বভারতীয় ভাষা হওয়া উচিত বলে মনে করতেন৤ মাইকেল মধুসূদনের সহপাঠী বন্ধু, বিদ্যাসাগরের বিধবা-বিবাহ প্রস্তাব তিনি সমর্থন করেননি৤
শ্যামাচরণ লাহিড়ি(১৮২৮-৯৫)[৬৮] গৃহী সন্ন্যাসী৤
দীনবন্ধু মিত্র(১৮৩০-৭৩)[৪৪] নীলদর্পণ নাটকের লেখক৤
তারকনাথ পালিত(১৮৩১-১৯১৪)[৮৪] এঁর দান করা বাড়িতে ক.বি. সায়েন্স কলেজ৤
প্রেমচাঁদ, রায়চাঁদ(১৮৩১-১৯২৮)[৯৮] গুজরাতি, বৃত্তির জন্য (১৮৬৮)ক.বি.-কে দু লক্ষ টাকা দেন৤
কাঙাল হরিনাথ[মজুমদার](১৮৩৩-৯৬)[৬৪] সাংবাদিক৤
মহেন্দ্রলাল সরকার(১৮৩৩-১৯০৪)[৭২] চিকিৎসক(এয্‍‌লোপ্যাথি পরে হোমিওপ্যাথি)৤
বিহারীলাল চক্রবর্তী(১৮৩৫-৯৪)[৬০] কবি৤
‘ভাই’ গিরিশচন্দ্র সেন(১৮৩৫-১৯১০)[৭৬]কোরান শরীফের বাংলা অনুবাদক৤
শ্রীশচন্দ্র বিদ্যারত্ন(●--●) বিদ্যাসাগরের অনুপ্রতিম বন্ধু৤ সংস্কৃত কলেজের অধ্যাপক৤বিধবা বিবাহ আইন পাশ হবার পরে বালিকা বিধবা কালীমতী দেবীকে ১৮৫৬, ৭ডিসেম্বর তিনিই প্রথম বিবাহ করে সেযুগের রক্ষণশীল সমাজে বিপ্লবের সূচনা করেন৤
রামকৃষ্ণ পরমহংস(১৮৩৬-৮৬)[৫১] গদাধর চট্টোপাধ্যায় কালী সাধক যুগপুরুষ৤ ‘যত মত তত পথ’ তাঁর মতবাদ৤
গুরুদাস চট্টোপাধ্যায়(১৮৩৭-১৯১৮)[৮২] শরৎচন্দ্রের রচনার প্রকাশক৤
ব্রহ্মানন্দ কেশবচন্দ্র সেন(১৮৩৮-৮৪)[৪৭] সমাজ সংস্কারক, জাতীয় চেতনার অন্যতম সূচনাকার, ‘ভারতবর্ষীয় ব্রহ্মসমাজ’ গঠন করেন(১১নভেঃ১৮৬৬)৤
বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়(১৮৩৮-৯৪)[৫৭] সাহিত্যসম্রাট৤ ‘বন্দেমাতরম’ সংগীত তাঁর রচনা৤
বামাক্ষ্যাপা(১৮৩৮-১৯১১)[৭৪] বামাচরণ চট্টোপাধ্যায় তারাপীঠের কালী সাধক৤
কালীপ্রসন্ন সিংহ(১৮৪০-৭০)[৩১] হুতোম প্যাঁচার নক্সা-র লেখক৤
যদুভট্ট(১৮৪০-৮৩)[৪৪] ধ্রুপদ গান লেখক ও গায়ক৤
শিশিরকুমার ঘোষ(১৮৪০-১৯১১)[৭২] সাংবাদিক, নীলকর বিরোধী আন্দোলনের সমর্থক৤ ইংরেজদের চালু করা ভার্নাকুলার এয্‍ক্ট এড়াবার জন্য দ্বিভাষিক পাক্ষিক অমৃতবাজার পত্রিকার বাংলা অংশ বাদ দিয়ে সম্পূর্ণ ইংরেজিতে প্রকাশ করলে জাতীয়তাবাদী পত্রিকা বলে জনপ্রিয় হয়৤ পরে তা দৈনিক সংবাদপত্র হয়৤ সর্ব প্রথমে এটি ছিল গ্রামের বাংলা পাক্ষিক পত্রিকা৤
সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুর(১৮৪২-১৯২৩)[৮২] ভারতের প্রথম আইসিএস(১৮৬৪)৤ ঠাকুর বাড়ির দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুরের দ্বিতীয় পুত্র৤ রবীন্দ্রনাথের দাদা৤ 


উমেশচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৪৪-১৯০৬)[৬৩][ডবলিউ সি ব্যানার্জি]কংগ্রেসের প্রথম সভাপতি৤ 


গিরিশচন্দ্র ঘোষ(১৮৪৪-১৯১২)[৬৯] নাট্যকার, অভিনেতা, গীতিকার৤
স্যার গুরুদাস বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৪৪-১৯১৮)[৭৫] কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভারতীয় ভাইস চ্যান্সেলর৤
রাসবিহারী ঘোষ(১৮৪৫-১৯২১)[৭৭] আইনজীবী ও জাতীয়তাবাদী নেতা৤
কৃষ্ণধন বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৪৬-১৯০৫)[৬০] সঙ্গীতসাধক৤
আনন্দমোহন বসু(১৮৪৭-১৯০৭)[৬১] পণ্ডিত,শিক্ষাব্রতী৤
নবীনচন্দ্র সেন(১৮৪৭-১৯০৯)[৬২] কবি৤
ত্রৈলোক্যনাথ মুখোপাধ্যায়(১৮৪৭-১৯১৯)[৭৩] বাংলায় হাস্যরসের লেখক৤
শিবনাথ শাস্ত্রী(১৮৪৭-১৯১৯)[৭৩] লেখক, ব্রাহ্ম ধর্ম আন্দোলনের নেতা, বিদ্যাসাগরের সকল সমাজসংস্কারের সমর্থক৤ ‘রামতনু লাহিড়ী ও তৎকালীন বঙ্গসমাজ’ গ্রন্থের লেখক৤
রমেশচন্দ্র দত্ত(১৮৪৮-১৯০৯)[৬২] ঐতিহাসিক, ঋক্‌বেদ সংহিতার অনুবাদক৤
সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৪৮-১৯২৫)[৭৮] রাষ্ট্রগুরু বিশিষ্ট রাজীতিবিদ৤ ১৯০৫-এর বঙ্গভঙ্গের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে খ্যাত৤
রজনীকান্ত গুপ্ত(১৮৪৯-১৯০০)[৫১] সাহিত্যিক, ঐতিহাসিক৤
অন্নদা বাগচি(১৮৪৯-১৯০৫)[৫৭] চিত্রকর শিল্পী৤
জ্যোতিরিন্দ্রনাথ ঠাকুর(১৮৪৯-১৯২৫)[৭৭] বহুমুখী প্রতিভা৤ সাহিত্যিক, বহু ব্যবসার উদ্যোগী, দেশপ্রেমিক, একাধিক ভাষায় দক্ষ, ছবি আঁকা, সংগীতে দক্ষ এবং বাদক, ঠাকুর বাড়ির সন্তান৤ রবীন্দ্রনাথের বিকাশের প্রধান সহায়ক বড়দাদা৤
অর্ধেন্দুশেখর মুস্তাফি(১৮৫০-১৯০৯)[৬০] বঙ্গীয় নাট্য আন্দোলনের নেতা৤ জ্ঞানদানন্দিনী দেবী(১৮৫১-১৯৪১)[৯১] জোড়াসাঁকোর ঠাকুর বাড়ির বধূ, বঙ্গনারীর সাজের দিশারী৤ 

 
আর জি কর(১৮৫২-১৯১৮)[৬৭][রাধাগোবিন্দ কর]চিকিৎসক৤


কৃষ্ণকুমার মিত্র(১৮৫২-১৯৩৬)[৮৫] নীলকরদের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী৤
সারদাদেবী(১৮৫৩-১৯২০)[৬৮] শ্রীরামকৃষ্ণের স্ত্রী৤
মীর মোশারফ হোসেন(১৮৫৩-১৯২২)[৭০] বিষাদসিন্ধু, জমিদার দর্পণ গ্রন্থের লেখক৤
অমৃতলাল বসু(১৮৫৩-১৯২৯)[৭৭] নট ও নাট্যকার৤ 


হরপ্রসাদ শাস্ত্রী(১৮৫৩-১৯৩৯)[৮৭] সংস্কৃত পণ্ডিত, বাংলাভাষা গবেষক৤ নেপাল থেকে দুর্লভ প্রাচীন পুথি সংগ্রহ করে বাংলাভাষার আদি গ্রন্থ “চর্চাচর্য বিনিশ্চয়” তথা ‘হাজার বছরের পুরান বাংলা ভাষায় বৌদ্ধ গান ও দোঁহা’ প্রকাশ করেন৤ 

 
মহেন্দ্র গুপ্ত(১৮৫৪-১৯৩২)[৭৯] শ্রীম৤ রামকৃষ্ণদেবের সান্নিধ্য ধন্য৤ ‘শ্রীশ্রীরামকৃষ্ণ কথামৃত’ রচয়িতা৤
অরু দত্ত(১৮৫৪-৭৮)[২৫] বোন তরু দত্তের সঙ্গে প্রথম বাঙালি মহিলা বিলেত যান৤
বিহারীলাল সরকার(১৮৫৫-১৯২১)[৬৭] ঐতিহাসিক,অন্ধকূপ হত্যা মিথ্যা প্রমাণ করেন৤
যাদবচন্দ্র চক্রবর্তী(১৮৫৫-১৯২৩)[৬৯] গণিতবিদ৤
অশ্বিনীকুমার দত্ত(১৮৫৬-১৯২৩)[৬৮] দেশ নেতা, বাংলাদেশের বরিশালে ব্রজমোহন কলেজ(বি এম কলেজ) প্রতিষ্ঠা করেন৤
যোগীন্দ্রনাথ বসু(১৮৫৭-১৯২৭)[৭১] শিক্ষক, শিশুসাহিত্যিক৤ মাইকেল মধুসূদন দত্তের জীবনীকার৤
গিরীন্দ্রমোহিনী দাসী(১৮৫৮-১৯২৪)[৬৭] কবি৤
বিপিনচন্দ্র পাল(১৮৫৮-১৯৩২)[৭৫] স্বাধীনতা সংগ্রামী লাল-বাল-পাল[লালা লাজপত রায়, বাল গঙ্গাধর টিলক, বিপিনচন্দ্র পাল] নেতৃত্রয়৤
মহেশচন্দ্র ভট্টাচার্য(১৮৫৮-১৯৪৩)[৮৬] হোমিওপ্যাথি ঔষধ ব্যবসায়ী৤
ভূপেন্দ্রনাথ বসু(১৮৫৯-১৯২৪)[৬৬] আইনজীবী, রাজনীতিক৤
জগদীশ চন্দ্র বসু(১৮৫৯-১৯৩৭)[৭৯] বিজ্ঞানী, গবেষক, উদ্ভিদের চেতনা বিষয়ে নতুন ধারণার প্রকাশক৤
যোগেশচন্দ্র রায় বিদ্যানিধি(১৮৫৯-১৯৫৬)[৯৮] পণ্ডিত, বাংলা বানানে দ্বিত্ব বর্জনের সূচনাকার৤
আশানন্দ ঢেঁকি(উনিশ শতকের মাঝামাঝি)বাড়ির ঢেঁকি নিয়ে ডাকাতের সঙ্গে দুঃসাহসিক লড়াই৤
অক্ষয়কুমার বড়াল(১৮৬০-১৯১৯)[৬০] খ্যাত কবি৤
মণীন্দ্রচন্দ্র নন্দী(ইং১৮৬০-১৯২৯, বঙ্গাব্দ ১২৬৭-১৩৩৬)[৭০] মুর্শিদাবাদ জেলার কাশিমবাজারের মহারাজা৤ দাতা, বিদ্যোৎসাহী, সাহিত্যানুরাগী, শিল্পোদ্যোগী৤
ঈশানচন্দ্র ঘোষ(১৮৬০-১৯৩৫)[৭৬] বৌদ্ধ জাতকের অনুবাদক৤
মোজাম্মেল হক(১৮৬০-১৯৩৬)[৭৭] লেখক৤
চন্দ্রমুখী বসু(১৮৬০-১৯৪৪)[৮৫] প্রথম বাঙালি মহিলা ক.বি. থেকে এম.এ.৤ 


ব্রহ্মবান্ধব উপাধ্যায়(১৮৬১-১৯০৭)[৪৭] প্রকৃত নাম ভবানীচরণ বন্দ্যোপাধ্যায় খ্রিস্টান হন, পরে আবার হিন্দু৤ শান্তিনিকেতনের আশ্রমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক৤ 

কাদম্বিনী গঙ্গোপাধ্যায়(১৮৬১-১৯২৩)[৬৩] পণ্ডিত, প্রথম প্রবেশিকা পরীক্ষায় পাশ, ও প্রথম গ্রাজুয়েট(চন্দ্রমুখী বসু সহ) মহিলা৤
জলধর সেন(১৮৬১-১৯৩৯)[৭৯] লেখক, ‘মাসিক ভারতবর্ষ’ পত্রিকার সম্পাদক৤ 


রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর(১৮৬১-১৯৪১, বাংলা ২৫ বৈশাখ ১২৬৮/৭মে,১৮৬১ - ২২শ্রাবণ ১৩৪৮/৭আগস্ট,১৮৪১)[আয়ু ৮০ বছর তিনমাস৤ ৮১] বাংলা সাহিত্য, সংগীত, সংস্কৃতির দিশারী৤ ইউরোপের বাইরে সাহিত্যে প্রথম নোবেল প্রাপক৤ বিশ্বভারতীর প্রতিষ্ঠাতা৤বাঙালির নব সংস্কৃতির উদ্বোধক৤ 

 
নীলরতন সরকার(১৮৬১-১৯৪৩)[৮৩] চিকিৎসক৤
আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায়(১৮৬১-১৯৪৪)[৮৪] দেশজ বিজ্ঞানে আগ্রহী বিজ্ঞানী, বেঙ্গল কেমিক্যালের প্রতিষ্ঠাতা৤ বাঙালির উন্নয়নে আত্মনিবেদিত৤
ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ(১৮৬২-১৯৭২)[১১০] বাদক ও গায়ক৤
স্বামী বিবেকানন্দ(১৮৬৩-১৯০২)[৪০] রামকৃষ্নদেবের প্রধান শিষ্য সন্ন্যাসী৤
বিপ্লবী সন্ন্যাসী৤
দ্বিজেন্দ্রলাল রায়(১৮৬৩-১৯১৩)[৫১] কবি, গীতিকার, নাট্যকার৤
উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরি(১৮৬৩-১৯১৫)[৫৩] শিশু সাহিত্যিক৤ সুকুমার রায়ের বাবা, সত্যজিৎ রায়ের ঠাকুরদা৤
ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ(১৮৬৩-১৯২৭)[৬৫] নাট্যকার৤ 


সত্যেন্দ্রপ্রসন্ন সিংহ(১৮৬৩-১৯২৮)[৬৬] লর্ড সিন্‌হা বাংলার এয্‍ডভোকেট জেনারেল, ভারত সরকারের আইন মন্ত্রী, কংগ্রেস সভাপতি, ব্রিটিশ ভারতের প্রথম লর্ড৤ 


মানকুমারী বসু(১৮৬৩-১৯৪৩)[৮১] কবি, মাইকেল মধুসূদন দত্তের ভাইঝি৤
কেদার নাথ বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৬৩-১৯৪৯)[৮৭] বাংলা সাহিত্যে দাদামশাই নামে খ্যাত৤
রামেন্দ্রসুন্দর ত্রিবেদী(১৮৬৪-১৯১৯)[৫৬] বাংলায় বিজ্ঞান, দর্শন, সাহিত্য বিষয়ের প্রধান লেখক৤
আশুতোষ মুখোপাধ্যায়(১৮৬৪-১৯২৪)[৬১] বাংলার বাঘ, বিচারপতি, ক.বি. উপাচার্য৤
কামিনী রায়(১৮৬৪-১৯৩৩)[৭০] সুকবি, অনার্স সহ ভারতের প্রথম মহিলা গ্রাজুয়েট৤
রজনীকান্ত সেন(১৮৬৫-১৯১০)[৪৬] গীতিকার৤ কান্তকবি
রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়(১৮৬৫-১৯৪৩)[৭৯] সাংবাদিক৤
বসন্তরঞ্জন রায় বিদ্বদ্বল্লভ(১৮৬৫-১৯৫২)[৮৮] শ্রীকৃষ্ণকীর্তন পুথির উদ্ধারকারী৤
পাঁচকড়ি বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৬৬-১৯২৩)[৫৮] লেখক, সাংবাদিক৤
যোগীন্দ্রনাথ সরকার(১৮৬৬-১৯৩৭)[৭২] শিশু সাহিত্যিক ও হাসিখুশি” ও ‘হাসিরাশি’ শিশু গ্রন্থের রচয়িতা৤ নীলরতন সরকারের ছোট ভাই৤
দীনেশচন্দ্র সেন(১৮৬৬-১৯৩৯)[৭৪] বাংলাভাষার ইতিহাস লেখক ও গবেষক৤ 


ভগিনী নিবেদিতা(১৮৬৭-১৯১১)[৪৫] মার্গারেট এলিজাবেথ নোব়্ল৤ বিদেশি৤ বিবেকানন্দের শিষ্য৤ 


গগনেন্দ্রনাথ ঠাকুর(১৮৬৭-১৯৩৮)[৭২] ঠাকুর পরিবারের মানুষ, চিত্রকর৤
হরিচরণ বন্দ্যোপাধায়(১৮৬৭-১৯৫৯)[৯৩] প্রসিদ্ধ বাংলা অভিধান বঙ্গীয় শব্দকোষ” একক প্রচেষ্টায় রচনা করেন৤
জগদিন্দ্র রায়(১৮৬৮-১৯২৬)[৫৯] নাটোরের রাজা, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনে যুক্ত ছিলেন৤
হীরেন্দ্রনাথ দত্ত(১৮৬৮-১৯৪২)[৭৫] দার্শনিক, জাতীয়তাবাদী নেতা৤ 


প্রমথ চৌধুরী(১৮৬৮-১৯৪৬)[৭৯]‘বীরবল’ সবুজ পত্রের সম্পাদক৤ বাংলা গদ্যে কথ্যভাষার মার্জিত রূপ সৃষ্টি করেন৤যে ভাষায় আজ বাংলার সমস্ত লেখালিখি চলে৤ 


সখারাম গণেশ দেউস্কর(১৮৬৯-১৯১২)[৪৪] মারাঠি৤ বাংলাভাষার লেখক৤ ইন্দুমাধব মল্লিক(১৮৬৯-১৯১৭)[৪৯] ইকমিক কুকারের আবিষ্কারক৤
দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাশ(১৮৭০-১৯২৫)[৫৬] খ্যাত দেশনেতা৤


মাতঙ্গিনী হাজরা(১৮৭০-১৯৪২)[৭৩] গান্ধীবুড়ি স্বাধীনতা সংগ্রামী শহিদ৤ 


স্যার যদুনাথ সরকার(১৮৭০-১৯৫৮)[৮৯] ঐতিহাসিক৤
অতুলপ্রসাদ সেন(১৮৭১-১৯৩৪)[৬৪] কবি ও গীতিকার৤ [‘আ মরি বাংলাভাষা!’ গানটি তাঁরই রচনা]
অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর(১৮৭১-১৯৫১)[৮১] জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবারের সন্তান, চিত্রশিল্পী ‘অবন ঠাকুর ছবি লেখে’ ও কথাসাহিত্যিক৤ ক্ষীরের পুতুল, শকুন্তলা, বুড়ো আংলা তাঁর রচনা৤
মুন্সি আব্দুল করিম(১৮৭১-১৯৫৯)[৮৯] বাংলা সাহিত্য গবেষক৤
জ্ঞানেন্দ্রমোহন দাস(১৮৭২-১৯৩১)[৬০] ‘বাঙ্গালা ভাষার অভিধান’ প্রণেতা, বিশ বছরের একক প্রয়াস৤ উত্তর প্রদেশের পুলিশ বিভাগের কর্মচারি৤
সরলাদেবী চৌধুরানী(১৮৭২-১৯৪৫)[৭৪] সমাজসংস্কারক৤ রবীন্দ্রনাথের বোন স্বর্ণকুমারীদেবীর মেয়ে৤
অরবিন্দ ঘোষ[শ্রীঅরবিন্দ](১৮৭২-১৯৫০)[৭৯]বিপ্লবী নেতা, ও পরে যোগী দার্শনিক৤
প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়(১৮৭৩-১৯৩২)[৬০] গল্প-উপন্যাস লেখক৤
ইন্দিরাদেবী চৌধুরানী(১৮৭৩-১৯৬০)[৮৮] লেখিকা, প্রমথ চৌধুরীর স্ত্রী৤

 
এ কে ফজলুল হক(১৮৭৩-১৯৬২)[৯০] অবিভক্ত বাংলার জননেতা শের-ই-বাঙ্গাল৤ বহুমুখী কর্মপ্রয়াস৤ অবিভক্ত বাংলার প্রধানমন্ত্রী, পূর্বপাক প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষাব্রতী৤ কোলকাতার লেডি ব্রাবোর্ন কলেজ, মৌলানা আজাদ কলেজ, বরিশালের চাখার কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন৤

 
উপেন্দ্রনাথ ব্রহ্মচারী(১৮৭৫-১৯৪৬)[৭২] কালাজ্বরের ওষুধের উদ্ভাবক৤
সরলাবালা সরকার(১৮৭৫-১৯৬১)[৮৭] লেখিকা৤
শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়(১৮৭৬-১৯৩৮)[৬৩] সবচেয়ে জনপ্রিয় অমর কথাশিল্পী৤ 'দেবদাস' তাঁর রচনা৤
হেমেন্দ্রপ্রসাদ ঘোষ(১৮৭৬-১৯৬২)[৮৭] দৈনিক বসুমতী পত্রিকার সম্পাদক৤
হরিনাথ দে(১৮৭৭-১৯১১)[৩৫] বহুভাষাবিদ পণ্ডিত৤ কলেজ অধ্যক্ষ, কোলকাতায় ইম্পিরিয়াল লাইব্রেরির(বর্তমানে ভারতের জাতীয় গ্রন্থাগার) গ্রন্থাগারিক৤
চারুচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৭৭-১৯৩৮)[৬২] ‘রবি-রশ্মি’ গ্রন্থের লেখক৤
করুণানিধান বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৭৭-১৯৫৫)[৭৯] কবি৤
হরেন্দ্রকুমার মুখোপাধ্যায়(১৮৭৭-১৯৫৬)[৮০] পঃবঃ রাজ্যপাল, ক.বি. ইংরেজির অধ্যাপক, স্বাধীন ভারতের সংবিধান পরিষদের সহ-সভাপতি৤ জন্ম খ্রিস্টান পরিবারে৤
দক্ষিণারঞ্জন মিত্র মজুমদার(১৮৭৭-১৯৫৭)[৮১] শিশু সাহিত্যিক, ‘ঠাকুরমার ঝুলি’ সংকলক৤
মুকুন্দ দাস(১৮৭৮-১৯৩৪)[৫৬] যজ্ঞেশ্বর দে চারণ কবি৤ দোকানদার ছিলেন৤
যতীন্দ্রমোহন বাগচি(১৮৭৮-১৯৪৮)[৭১] কবি৤
কুলদারঞ্জন রায়(১৮৭৮-১৯৫০)[৭৩] শিশু সাহিত্যিক৤
সুবলচন্দ্র মিত্র(১৮৭৯-১৯১৩)[৩৫] অভিধানকার৤
সুবোধ মল্লিক(১৮৭৯-১৯২০)[৪২] দেশনায়ক৤
ইন্দিরা দেবী(১৮৭৯-১৯২২)[৪৪] লেখিকা৤
অমূল্যচরণ বিদ্যাভূষণ(১৮৭৯-১৯৪০)[৬২] বহুভাষাবিদ পণ্ডিত ও নানা বিচিত্র বিষয়ের অভিধানকার৤
সরোজিনী নাইডু(১৮৭৯-১৯৪৯)[৭১] দেশনেত্রী, ইংরেজিতে কবিতা লিখে খ্যাত৤ পিতা ঢাকার অঘোরনাথ চট্টোপাধ্যায়৤
উপেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৭৯-১৯৫০)[৭২] দৈনিক বসুমতীর সম্পাদক৤ 


যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়(১৮৮০-১৯১৫)[৩৫] বাঘা যতীন ওড়িশার বুড়ি বালাম নদীর তীরে স্বাধীনতা সংগ্রামে পুলিশের সাথে সম্মুখ যুদ্ধে আহত ও পরদিন মৃত্যু৤ অল্প বয়সে নিজের নাম লিখতেন -- জ্যোতিন


বেগম রোকেয়া(১৮৮০-১৯৩২)[৫৩] বাংলার নারীমুক্তি আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ৤
বীরেন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়(১৮৮০-১৯৪৩)[৬৪] বিপ্লবী, রাশিয়ার লেনিনগ্রাদ ছিল প্রধান কর্মক্ষেত্র৤ ফ্রান্স, জার্মান, রাশিয়া যান৤ সরোজিনী নাইডুর ভাই
রাসবিহারী বসু(১৮৮০-১৯৪৫)[৬৬] স্বাধীনতা সংগ্রামী, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আজাদ হিন্দ ফৌজের প্রথম সংগঠক৤ ১৯১২-তে দিল্লির বড়লাটকে হত্যার চেষ্টায় জড়িত ছিলেন৤
বারীণ ঘোষ(১৮৮০-১৯৫৯)[৮০] শ্রীঅরবিন্দের ছোট ভাই৤ বিপ্লবী৤
ক্ষিতিমোহন সেন(১৮৮০-১৯৬০)[৮০] রবীন্দ্রানুরাগী বিশ্বভারতীর আশ্রমিক৤ 


রাজশেখর বসু(১৮৮০-১৯৬০)[৮০] ‘পরশুরাম’ বিজ্ঞানের লোক কিন্তু বাংলাভাষার চর্চায় নিবেদিত৤ বাংলা অভিধান ‘চলন্তিকার’ সংকলক৤ছোট ভাই মনোবিদ গিরীন্দ্রশেখর বসু৤ বাংলা লাইনো টাইপের প্রবর্তক৤ 
 
খগেন্দ্রনাথ মিত্র(১৮৮০-১৯৬১)[৮১] অধ্যাপক, সাহিত্যিক৤
গোপেশ্বর বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৮০-১৯৬২)[৮২] বিষ্ণুপুর ঘরানার ধ্রুপদী গায়ক৤
বাসন্তী দেবী(১৮৮০-১৯৭৪)[৯৫] দেশবন্ধুর স্ত্রী ও রাজনৈতিক সহযোগী৤ 


মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানি(১৮৮০-১৯৭৬)[৯৭] চিনপন্থী জাতীয়তাবাদী নেতা৤ শেষ জীবনে বাংলাদেশে ছিলেন৤
সতীশচন্দ্র দাশগুপ্ত(১৮৮০-১৯৭৯)[১০০] গান্ধীবাদী নেতা৤
দেশপ্রাণ বীরেন্দ্রনাথ শাসমল(১৮৮১-১৯৩৪)[৫৪] জননেতা৤
উপেন্দ্রনাথ গঙ্গোপাধ্যায়(১৮৮১-১৯৬০)[৮০] সাহিত্যিক৤
শরৎচন্দ্র পণ্ডিত(১৮৮১-১৯৬৮)[৮৮] দাদা ঠাকুর প্রখ্যাত হাস্যরসিক লেখক৤
অর্ধেন্দুকুমার গঙ্গোপাধ্যায়[ও সি গাঙ্গুলি](১৮৮১-১৯৭৪)[৯৪]শিল্পসমালোচক৤
সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত(১৮৮২-১৯২২)[৪১] কবি৤
গুরুসদয় দত্ত(১৮৮২-১৯৪১)[৬০] ব্রতচারী আন্দোলনের প্রবর্তক৤
নলিনীরঞ্জন সরকার(১৮৮২-১৯৫৩)[৭২] কেন্দ্রীয় ও রাজ্য মন্ত্রী৤
অনুরূপা দেবী(১৮৮২-১৯৫৮)[৭৭] লেখিকা৤
নন্দলাল বসু(১৮৮২-১৯৬৬)[৮৫] চিত্র শিল্পী৤
কুমুদরঞ্জন মল্লিক(১৮৮২-১৯৭০)[৮৯] কবি৤
নিরুপমা দেবী(১৮৮৩-১৯৫১)[৬৯] লেখিকা৤
চারুচন্দ্র ভট্টাচার্য(১৮৮৩-১৯৬১)[৭৯] তাঁর উদ্যোগে রবীন্দ্ররচনা খণ্ডে খণ্ডে প্রকাশ শুরু৤
স্বামী প্রজ্ঞানানন্দ(১৮৮৪-১৯২১)[৩৮] সতীশচন্দ্র মুখোপাধ্যায় প্রথম জীবনে বিপ্লবী৤
প্রফুল্লকুমার সরকার(১৮৮৪-১৯৪৪)[৬১] আনন্দবাজার পত্রিকার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা৤
ভিক্ষু শীলভদ্র(১৮৮৪-১৯৫৫)[৭২] বৌদ্ধ শ্রমণ৤
সত্যচরণ লাহা(১৮৮৪-১৯৮৪)[১০১] পক্ষিতত্ত্ববিদ৤
যতীন্দ্রমোহন সেনগুপ্ত(১৮৮৫-১৯৩৩)[৪৯] স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা৤ সুরেন্দ্রনাথ দাশগুপ্ত(১৮৮৫-১৯৫২)[৬৮] খ্যাত দার্শনিক৤
উল্লাসকর দত্ত(১৮৮৫-১৯৬৫)[৮১] বিপ্লবী৤ প্রথমে মৃত্যুদণ্ড, পরে যাবজ্জীবন, জীবনের শেষদিকে মুক্তি৤
মহম্মদ শহীদুল্লাহ(১৮৮৫-১৯৬৯)[৮৫] বাংলাভাষা গবেষক, পণ্ডিত, অধ্যাপক৤
রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৮৬-১৯৩০)[৪৫] প্রত্নতত্ত্ববিদ, ঐতিহাসিক৤
কান্তিচন্দ্র ঘোষ(১৮৮৬-১৯৪৮)[৬৩] বাংলায় ওমর খৈয়ামের রুবাইয়াৎ অনুবাদক৤
ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত(১৮৮৬-১৯৭১)[৮৬] তিনিই পূর্বপাকিস্তানে বাংলাভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার প্রস্তাব দেন৤ বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামী, পাক বাহিনীর হাতে নিহত৤
নেলী সেনগুপ্ত(১৮৮৬-১৯৭৩)[৮৮] নেলী গ্রে, ব্রিটিশ৤ জননেতা যতীন্দ্রমোহন সেনগুপ্তের স্ত্রী৤ ভারতের জাতীয় আন্দোলনে জড়িয়ে ছিলেন৤
যাদুগোপাল মুখোপাধ্যায়(১৮৮৬-১৯৭৬)[৯১] ডাক্তার, বিপ্লবী যুগান্তর দলের নেতা৤
কানাইলাল দত্ত(১৮৮৭-১৯০৮)[২২] বিপ্লবী শহিদ৤ ফাঁসিতে মৃত্যু৤
সুকুমার রায়(১৮৮৭-১৯২৩)[৩৭] শিশু সাহিত্যিক৤ সত্যজিৎ রায়ের বাবা৤ আবোল তাবোল তাঁর রচনা৤
বিনয়কুমার সরকার(১৮৮৭-১৯৪৯)[৬৩] অর্থনীতিবিদ,ভাষাবিদ, লেখক৤
গিরীন্দ্রশেখর বসু(১৮৮৭-১৯৫৩)[৬৭] মনস্তত্ত্ববিদ চিকিৎসক, মনোবিজ্ঞানের ইংরেজি, বাংলা বইয়ের লেখক৤ রাজশেখর বসুর(পরশুরাম) ছোট ভাই৤

বিপিনবিহারী গাঙ্গুলি(১৮৮৭-১৯৫৪)[৬৮] বিপ্লবী৤
মানবেন্দ্রনাথ রায়(১৮৮৭-১৯৫৪)[৬৮] নরেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য বিপ্লবী, আন্তর্জাতিক কমিউনিস্ট আন্দোলনের নেতা৤
যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত(১৮৮৭-১৯৫৪)[৬৮] ইঞ্জিনিয়ার, কবি৤
প্রফুল্ল চাকি(১৮৮৮-১৯০৮)[২১] বিপ্লবী৤
বেণীমাধব বড়ুয়া(১৮৮৮-১৯৪৮)[৬১] ভারততত্ত্ববিদ, পালি ও বৌদ্ধশাস্ত্রে পণ্ডিত৤
সুরেশচন্দ্র মজুমদার(১৮৮৮-১৯৫০)[৬৩] বাল্যবন্ধু প্রফুল্লকুমার সরকারের সঙ্গে ১৯২২ খ্রিস্টাব্দে আনন্দবাজার পত্রিকা প্রকাশ করেন৤
মোহিতলাল মজুমদার(১৮৮৮-১৯৫২)[৬৫] সমালোচনা সাহিত্যে খ্যাত৤
নির্মলচন্দ্র চন্দ্র(১৮৮৮-১৯৫৩)[৬৬] বঙ্গরাজনীতির পঞ্চপ্রধানের একজন৤ রথীন্দ্রনাথ ঠাকুর(১৮৮৮-১৯৬১)[৭৪] কৃষিবিজ্ঞানী, বিশ্বভারতীর প্রথম উপাচার্য, রবীন্দ্রনাথের পুত্র৤
বিধানচন্দ্র রায়(১৮৮৮-১৯৬২)[৭৫] চিকিৎসক, পঃবঃ মুখ্যমন্ত্রী৤
হেমেন্দ্রকুমার রায়(১৮৮৮-১৯৬৩)[৭৬] শিশুসাহিত্যিক৤
নরেশচন্দ্র মিত্র(১৮৮৮-১৯৬৮)[৮১] অভিনেতা৤
অনুকূল ঠাকুর(১৮৮৮-১৯৬৯)[৮২] ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ‘সৎসঙ্ঘ’-এর প্রতিষ্ঠাতা৤
যামিনী রায়(১৮৮৮-১৯৭২)[৮৫] যুগপ্রবর্তক অনন্য চিত্রশিল্পী৤
রমেশচন্দ্র মজুমদার(১৮৮৮-১৯৮০)[৯৩] ঐতিহাসিক৤
ক্ষুদিরাম বসু(১৮৮৯-১৯০৮)[১৯] ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রথম শহিদ৤ ফাঁসি ১০ আগস্ট, ১৯০৮৤
শরৎচন্দ্র বসু(১৮৮৯-১৯৫০)[৬২] দেশনেতা৤ নেতাজি সুভাষচন্দ্রের দাদা৤ শিশিরকুমার ভাদুড়ি(১৮৮৯-১৯৫৯)[৭১] নট্যাচার্য৤
ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তী(১৮৮৯-১৯৭০)[৮২] স্বাধীনতা সংগ্রামী৤
নরেন্দ্র দেব(১৮৮৯-১৯৭১)[৮৩] লেখক৤ স্ত্রী রাধারানী দেবীও সুকবি৤
মুজফ্‌ফর আহমদ(১৮৮৯-১৯৭৩)[৮৫] ভারতের কমিউনিস্ট আন্দোলনের অন্যতম সূচনাকার৤
কালিদাস রায়(১৮৮৯-১৯৭৫)[৮৭] কবি৤
নলিনীকান্ত সরকার(১৮৮৯-১৯৮৪)[৯৬] গায়ক, লেখক, হাস্যরসিক৤
ভীমভবানী(১৮৯০-১৯২২)[৩৩] ভবেন্দ্রমোহন সাহা মল্লবীর সার্কাসের খেলোয়াড়৤
এস ওয়াজেদ আলি(১৮৯০-১৯৫১)[৬২] লেখক৤ ‘সেই ট্র্যাডিশন সমানে চলেছে’৤
অসিতকুমার হালদার(১৮৯০-১৯৬৪)[৭৫] চিত্রশিল্পী ও শিল্পশিক্ষক৤
প্রেমাঙ্কুর আতর্থী(১৮৯০-১৯৬৪)[৭৫] লেখক৤
হাসান শাহেদ সুরাবর্দি(১৮৯০-১৯৬৫)[৭৬] ভাষাতত্ত্ববিদ, চারুশিল্পী৤ ক.বি.অধ্যাপক, রাশিয়াতে অধ্যাপনা করেন,বহুদেশের রাষ্ট্রদূত,৩০টি ভাষায় জ্ঞান৤মৃত্যু করাচিতে৤
সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়(১৮৯০-১৯৭৭)[৮৮] আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ভাষাতাত্ত্বিক৤
ধনগোপাল মুখোপাধ্যায়(১৮৯১-১৯৩৬)[৪৬] বিপ্লবী, আমেরিকান ইংরেজি সাহিত্যিক৤
কিরণশঙ্কর রায়(১৮৯১-১৯৪৯)[৫৯] রাজনীতিবিদ কংগ্রেস নেতা৤
ব্রজেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৯১-১৯৫২)[৬২] বাংলা সাহিত্যের গবেষক৤
শিশিরকুমার মিত্র(১৮৯১-১৯৬৩)[৭২] বিজ্ঞানী শিক্ষক৤
কালিদাস নাগ(১৮৯১-১৯৬৬)[৭৫] ভারত তত্ত্ববিদ৤
দেবীপ্রসাদ রায়চৌধুরী(১৮৯১-১৯৭৫)[৮৫] ভাস্কর৤
সীতারামদাস ওঙ্কারনাথ(১৮৯১-১৯৮২)[৯২] প্রবোধ চট্টোপাধ্যায় উচ্চমার্গের সাধক৤
প্রফুল্লচন্দ্র ঘোষ(১৮৯১-১৯৮৯)[৯৯] গান্ধীবাদী, পঃবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী৤
হোসেন শহিদ সুরাবর্দি(১৮৯২-১৯৬৩)[৭২] ভারত উপমহাদেশের নেতা৤ ভারত বিভাগের পূর্বে ১৯৪৬-এ অবিভক্ত বাংলার প্রধান মন্ত্রী হন, পরে পাকিস্তানের নেতা৤ শেষে অবিভক্ত পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী[১৯৫৬]৤ আয়ুব খাঁর সামরিক শাসনের কালে রাজনীতি বিচ্ছিন্ন, পরে লেবাননের রাজধানী বেরুটে মৃত্যু৤
শ্রীকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৯২-১৯৭০)[৭৮] সাহিত্য সমালোচক৤
গোবর গুহ(১৮৯২-১৯৭২)[৮১] মল্লবীর৤
প্রভাতকুমার মুখোপাধ্যায়(১৮৯২-১৯৮৫)[৯৪] রবীন্দ্রজীবনীকার৤
নীলরতন ধর(১৮৯২-১৯৮৬)[৯৫] বিজ্ঞানী৤
সূর্য সেন(১৮৯৩-১৯৩৪)[৪১] মাস্টার দা চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠনের নেতা, গ্রেপ্তার ও পরে ফাঁসি হয়৤ অকুতোভয় সংগঠক বিপ্লবী৤
স্বামী প্রণবানন্দ(১৮৯৩-১৯৪১)[৪৯] ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা৤
মেঘনাদ সাহা(১৮৯৩-১৯৫৬)[৬৪] শিক্ষক বিজ্ঞানী, তার পরিকল্পনা মতো স্বাধীন ভারতের বহু প্রকল্প গড়ে ওঠে৤ আধুনিক ভারতের পঞ্জিকা সংস্কারক৤
কৃষ্ণচন্দ্র দে(১৮৯৩-১৯৬২)[৭০] গায়ক, দৃষ্টিহীন৤
ফণিভূষণ বিদ্যাবিনোদ(১৮৯৩-১৯৬৮)[৭৬] বড় ফণি যাত্রা জগতের প্রবাদপুরুষ৤
প্রশান্তচন্দ্র মহলানবিশ(১৮৯৩-১৯৭২)[৮০] রবীন্দ্রসান্নিধ্যধন্য পরিসংখ্যানবিদ৤
অমল হোম(১৮৯৩-১৯৭৫)[৮৩]রবীন্দ্রনাথের সান্নিধ্যধন্য সাংবাদিক৤
ধীরেন্দ্রনাথ গঙ্গোপাধ্যায়(১৮৯৩-১৯৭৮)[৮৬] ডি জি চারু শিল্পী ও চলচ্চিত্র নির্মাতা৤
কালীকিঙ্কর সেনগুপ্ত(১৮৯৩-১৯৮৬)[৯৪] কবি৤
বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৯৪-১৯৫০)[৫৭] ‘পথের পাঁচালি’ গ্রন্থের লেখক৤
জ্ঞানচন্দ্র ঘোষ(১৮৯৪-১৯৫৯)[৬৬] বিজ্ঞানী, কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য৤
ধূর্জটিপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়(১৮৯৪-১৯৬১)[৬৮] অধ্যাপক, গায়ক, শিক্ষাব্রতী৤
খাজা নাজিমুদ্দিন(১৮৯৪-১৯৬৪)[৭১] অবিভক্ত বাংলার দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী, অবিভক্ত পাকিস্তানের গভর্নর জেনারেল, ও প্রধানমন্ত্রী৤
সত্যেন্দ্রনাথ বসু(১৮৯৪-১৯৭৪)[৮১] বিশ্বখ্যাত বিজ্ঞানী৤
সুধীররঞ্জন দাশ(১৮৯৪-১৯৭৭)[৮৪] ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য৤
দেবপ্রসাদ ঘোষ(১৮৯৪-১৯৮৫)[৯২] শিক্ষাবিদ, অঙ্কে পণ্ডিত, বাংলা বানান নিয়ে রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে বিতর্কে খ্যাত৤
বিভূতিভূষণ মুখোপাধ্যায়(১৮৯৪-১৯৮৭)[৯৪] বভম লেখক৤ হাস্যরসিক৤
হেমন্তকুমার সরকার(১৮৯৫-১৯৫২)[৫৮] স্বাধীনতা সংগ্রামী৤ সুভাষচন্দ্রের বাল্য বন্ধু৤
বরদা উকিল(১৮৯৫-১৯৬৭)[৭৩] অঙ্কন শিল্পী৤
মুকুল দে(১৮৯৫-১৯৮৯)[৯৫] অঙ্কন শিল্পী৤
রাধাবিনোদ পাল(১৮৯৬-১৯৬৭)[৭২] আইনবিদ৤ আন্তর্জাতিক আদালতের বিচারক হিসেবে অন্যদের বিরুদ্ধে গিয়ে জাপানকে যুদ্ধাপরাধ থেকে মুক্তি দেন৤
কাজি আবদুল ওদুদ(১৮৯৬-১৯৭০)[৭৫] সুলেখক৤
অহীন্দ্র চৌধুরী(১৮৯৬-১৯৭৪)[৭৯] মঞ্চ ও চলচ্চিত্রের অভিনেতা৤
গোষ্ঠ পাল(১৮৯৬-১৯৭৬)[৮১] ফুটবল খেলোয়াড়৤
আনন্দময়ী মা(১৮৯৬-১৯৮২)[৮৭][পিতা বিপিনবিহারী ভট্টাচার্য]সন্ন্যাসিনী৤
শশধর দত্ত(●--১৯৫২)[] রোমাঞ্চ কাহিনি ‘দস্যুমোহন’ সিরিজের লেখক৤
সুভাষচন্দ্র বসু(১৮৯৭- ● [১৯৪৫])[৪৯ ৼ] নেতাজি বিশ্বখ্যাত দেশনায়ক৤
মোতাহার হোসেন(১৮৯৭-● )[] পণ্ডিত, বাংলাদেশের জাতীয় অধ্যাপক৤ বঙ্কিম মুখোপাধ্যায়(১৮৯৭-১৯৬১)[৬৫] কমিউনিস্ট নেতা৤
পরিমল গোস্বামী(১৮৯৭-১৯৭৬)[৮০] লেখক, সাংবাদিক৤
ত্রিপুরাশংকর সেনশাস্ত্রী(১৮৯৭-১৯৮০)[৮৪] লেখক, শিক্ষাব্রতী৤
দিলীপকুমার রায়(১৮৯৭-১৯৮০)[৮৪] গান ও কীর্তনে খ্যাত৤ দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের পুত্র৤
নীতীন বসু(১৮৯৭-১৯৮৬)[৯০] সিনেমা পরিচালক৤
প্রবোধচন্দ্র সেন(১৮৯৭-১৯৮৬)[৯০] বাংলা ছন্দ পণ্ডিত৤
প্রফুল্লচন্দ্র সেন(১৮৯৭-১৯৯০)[৯৪] পি.সি.সেন পঃবঃ মুখ্যমন্ত্রী৤
সাহানাদেবী(১৮৯৭-১৯৯০)[৯৪] গায়িকা, শ্রীঅরবিন্দের শিষ্য৤
রাধারমণ মিত্র(১৮৯৭-১৯৯২)[৯৬] কোলকাতা বিষয়ে গবেষক৤
সুকুমার সেন(১৮৯৮-১৯৬৩)[৬৬] স্বাধীন ভারতের প্রথম মুখ্য নির্বাচন কমিশনার৤
তারাশংকর বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৯৮-১৯৭১)[৭৪] সাহিত্যিক৤ ‘গণদেবতার’ লেখক৤
দেবকীকুমার বসু(১৮৯৮-১৯৭১)[৭৪] প্রথম যুগের চলচ্চিত্রকার৤
বিজয়লাল চট্টোপাধ্যায়(১৮৯৮-১৯৭৪)[৭৭] সাংবাদিক৤
ক্ষীরোদ নট্ট(১৮৯৮-১৯৭৫)[৭৮] ঢোলবাদক৤
কাজি নজরুল ইসলাম(১৮৯৮-১৯৭৬)[৭৯] বিদ্রোহী কবি, গীতিকার৤
অতুল বসু(১৮৯৮-১৯৭৭)[৮০] শিল্পী৤
ইন্দুবালা দেবী(১৮৯৮-১৯৮৪)[৮৭] গায়িকা৤
তুষারকান্তি ঘোষ(১৮৯৮-১৯৯৪)[৯৭] ইংরেজি ‘অমৃতবাজার পত্রিকা’ ও বাংলা কাগজ ‘যুগান্তর’-এর সম্পাদক৤
জীবনানন্দ দাশ(১৮৯৯-১৯৫৪)[৫৬] রূপসী বাংলার কবি৤ বাংলা কবিতার নব দিগন্তের সূচনাকারী৤
তুলসী চক্রবর্তী(১৮৯৯-১৯৬১)[৬৩] চলচ্চিত্র অভিনেতা৤
শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়(১৮৯৯-১৯৭০)[৭২] লেখক৤ ‘ঝিন্দের বন্দী’-র লেখক, গোয়েন্দা কাহিনির ব্যোমকেশ চরিত্রের স্রষ্টা৤
বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়(১৮৯৯-১৯৭৯)[৮১] বনফুল লেখক৤

১৯০০খ্রিস্টাব্দ__
সন্তোষকুমার মিত্র(১৯০০-৩১)[৩২] স্বাধীনতা সংগ্রামের শহিদ৤
ছবি বিশ্বাস(১৯০০-৬২)[৬৩] মঞ্চ ও চলচ্চিত্র অভিনেতা৤
সজনীকান্ত দাস(১৯০০-৬২)[৬৩] কবি, গীতিকার৤ ‘শনিবারের চিঠি’-র সম্পাদক৤
লীলা রায়(১৯০০-১৯৭০)[৭১] দেশনেত্রী৤
উদয়শঙ্কর(১৯০০-৭৭)[৭৮] নৃত্যশিল্পী৤
মহম্মদ কুদরত-ই-খুদা(১৯০০-৭৭)[৭৮] রসায়ন বিজ্ঞানী৤ শেষ জীবন বাংলাদেশে৤
নির্মলকুমারী মহলানবিশ(১৯০০-৮১)[৮২] রানি মহলানবিশ৤ রবীন্দ্রসান্নিধ্য ধন্য৤
আঙ্গুরবালা(১৯০০-৮৪)[৮৫] গায়িকা৤
সুকুমার সেন(১৯০০-৯২)[৯৩] ভাষাতত্ত্ববিদ, চিন্তাশীল লেখক৤
শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়(১৯০১-৫৩)[৫৩] তেজস্বী দেশনেতা, শিক্ষাসংগঠক৤ ক.বি. উপাচার্য৤
আব্বাসউদ্দিন আহমদ(১৯০১-৫৭)[৫৭] গায়ক৤
সুধীন্দ্রনাথ দত্ত(১৯০১-৬০)[৬০] আধুনিক বাংলা কবিতার অন্যতম পথিকৃৎ৤
নির্মলকুমার বসু(১৯০১-৭২)[৭২] নৃতত্ত্ববিদ৤
শিশিরকুমার মিত্র(১৯০১-৭৬)[৭৬] দার্শনিক, ইতিহাসবিদ, শিল্প সমালোচক৤
শৈলজানন্দ মুখোপাধ্যায়(১৯০১-৭৬)[৭৬] লেখক৤
অমিয় চক্রবর্তী(১৯০১-৮৪)[৮৪] কবি৤
প্রমথনাথ বিশী(১৯০১-৮৫)[৮৫] প্র.না.বি. লেখক৤
অজয় মুখোপাধ্যায়(১৯০১-৮৬)[৮৬] স্বাধীনতা সংগ্রামী ও পঃবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী৤
মনোজ বসু(১৯০১-৮৭)[৮৭] সাহিত্যিক৤
সুনির্মল বসু(১৯০২-৫৭)[৫৬] শিশুসাহিত্যিক, ছড়াছন্দে বিশেষ দক্ষ৤
চিন্তাহরণ চক্রবর্তী(১৯০২-৭২)[৭১] পণ্ডিত শিক্ষাব্রতী৤
শিবরাম চক্রবর্তী(১৯০২-৮০)[৭৯] শিশু সাহিত্যিক, হাস্যরসের স্রষ্টা৤
চারুচন্দ্র চক্রবর্তী(১৯০২-৮১)[৮০] লেখক, ছদ্মনাম জরাসন্ধ৤
অখিল নিয়োগী(১৯০২-৯৩)[৯২] স্বপন বুড়ো-- শিশু সাহিত্যিক৤ যুগান্তর দৈনিক পত্রিকার ছোটদের পাত্‌তাড়ির পরিচালক৤
রেজাউল করিম(১৯০২-৯৩)[৯২] শিক্ষাব্রতী, চিন্তাশীল লেখক৤
উমাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়(১৯০২-৯৭)[৯৬] ভ্রমণ সাহিত্যের লেখক৤
প্রমথেশ বড়ুয়া(১৯০৩-৫২)[৫০] চলচ্চিত্র পরিচালক ও অভিনেতা৤
জহর গঙ্গোপাধ্যায়(১৯০৩-৬৯)[৬৭] মঞ্চ ও চলচ্চিত্র অভিনেতা৤
বিষ্ণুচরণ ঘোষ(১৯০৩-৭০)[৬৮] ব্যায়ামবিদ৤
যোগেশচন্দ্র বাগল(১৯০৩-৭২)[৭০] বাংলা সাহিত্য ও ভারত-ইতিহাসের গবেষক৤
জসিমুদ্দিন(১৯০৩-৭৬)[৭৪] পল্লীকবি৤
নীহাররঞ্জন রায়(১৯০৩-৮১)[৭৯] ঐতিহাসিক৤
রাইচাঁদ বড়াল(১৯০৩-৮১)[৭৯] সঙ্গীত সাধক৤
রাধারানী দেবী(১৯০৩-৮৯)[৮৭] কবি৤
যতীন্দ্রনাথ দাস(১৯০৪-২৯)[২৬] ইংরেজের জেলে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ৬৩ দিন অনশন করে শহিদ হন৤
সৈয়দ মুজতবা আলি(১৯০৪-৭৪)[৭১] সাহিত্যিক৤
অতুল্য ঘোষ(১৯০৪-৮৬)[৮৩] রাজনৈতিক নেতা৤
প্রেমেন্দ্র মিত্র(১৯০৪-৮৬)[৮৩] কল্পবিজ্ঞান লেখক৤ ‘ঘনাদা’ চরিত্রের স্রষ্টা৤
তিমিরবরণ[ভট্টাচার্য](১৯০৪-৮৭)[৮৪] সিনেমার সঙ্গীত পরিচালক৤
ধীরাজ ভট্টাচার্য(১৯০৫-●)[] বাংলা চলচ্চিত্রর প্রথম যুগের অভিনেতা৤
নৃপেন্দ্রকৃষ্ণ চট্টোপাধ্যায়(১৯০৫-৬৪)[৬০] লেখক৤
প্রভাবতীদেবী সরস্বতী(১৯০৫-৭২)[৬৮] লেখক৤
পঙ্কজকুমার মল্লিক(১৯০৫-৭৮)[৭৪] সংগীত শিল্পী৤
অনিলচন্দ্র ঘোষ(১৯০৫-৭৯)[৭৫] গীতার অনুবাদক ও ভাষ্যকার৤
প্রবোধকুমার সান্যাল(১৯০৫-৮৩)[৭৯] পরিব্রাজক সাংবাদিক৤
আবুল হাসানাত(১৯০৫-৮৫)[৮১] বাংলাভাষায় যৌনবিজ্ঞানের লেখক৤
বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্র(১৯০৫-৯১)[৮৭] মহালয়ার ‘মহিষাসুরমর্দিনী’ সঙ্গীতালেখ্যের প্রধান ভাষ্যকার৤
ত্রিগুণা সেন(১৯০৫-৯৮)[৯৪] শিক্ষাব্রতী৤ যাদবপুর ও বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, ভারত সরকারের শিক্ষামন্ত্রী৤
সতীনাথ ভাদুড়ি(১৯০৬-৬৫)[৬০] লেখক৤জাগরী, ঢোঁরাই চরিত মানস- গ্রন্থের লেখক৤
পাহাড়ী সান্যাল(১৯০৬-৭৪)[৬৯] চলচ্চিত্র অভিনেতা৤
শচীন দেববর্মণ(১৯০৬-৭৫)[৭০] গায়ক, সুরকার৤
রামকিঙ্কর বেইজ(১৯০৬-৮০)[৭৫] শিল্পী ও ভাস্কর৤ তারঁ সৃষ্টি ‘সাঁওতাল পরিবার’৤
আবু সঈদ আইয়ুব(১৯০৬-৮২)[৭৭] রবীন্দ্র অনুরাগী বাংলা লেখক৤ মাতৃভাষা বাংলা নয়৤
এনামুল হক(১৯০৬- ● ) গবেষক৤
জ্ঞানেন্দ্রনাথ মজুমদার(১৯০৭-৭৮)[৭২] চিকিৎসক৤
কৃষ্ণ কৃপালনি(১৯০৭-৯২)[৮৬] সিন্ধু প্রদেশের লোক, বাংলাকে ঘর করে নিয়েছিলেন৤ রাজনৈতিক নেতা, রবীন্দ্রনাথের দৌহিত্রী[কন্যার কন্যা] নন্দিতাকে বিয়ে করেন৤
বিনয়কৃষ্ণ বসু(১৯০৮-৩০)[২৩] রাইটার্স অলিন্দ যুদ্ধ খ্যাত বিপ্লবী বিনয়-বাদল-দীনেশ৤
মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়(১৯০৮-৫৬)[৪৯] প্রবোধকুমার লেখক৤
হেমেন্দ্রনাথ মজুমদার(১৯০৮-৫৭)[৫০] খ্যাত চিত্রশিল্পী৤
বুদ্ধদেব বসু(১৯০৮-৭৪)[৬৭] লেখক৤
সুচেতা কৃপালনি(১৯০৮-৭৪)[৬৭] দেশব্রতী নেত্রী৤ বাবা সুরেন্দ্রনাথ মজুমদার, জন্ম পাঞ্জাবে৤ জাতীয়তাবাদী নেতা জে.বি. কৃপালনির সঙ্গে বিবাহ হয়৤
বন্দে আলি মিঞা(১৯০৮-৭৯)[৭২] কবি৤
জয়ন্তনাথ চৌধুরি(১৯০৮-৮৩)[৭৬] স্বাধীন ভারতের মেজর জেনারেল৤
রাধামোহন ভট্টাচার্য(১৯০৮-৮৩)[৭৬] সিনেমার অভিনেতা৤
পুলিনবিহারী সেন(১৯০৮-৮৪)[৭৭] রবীন্দ্রসাহিত্য বিশারদ৤
গজেন্দ্রকুমার মিত্র(১৯০৮-৯৪)[৮৭] লেখক, প্রকাশক৤
দেবিকারানী(১৯০৮-৯৪)[৮৭] ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতের প্রথম সম্মানিত মহিলা৤
সঞ্জয় ভট্টাচার্য(১৯০৯-৬৯)[৬১] কবি৤ সম্পাদক-- পূর্বাশা৤
ভীষ্মদেব চট্টোপাধ্যায়(১৯০৯-৭৭)[৬৯] গায়ক৤
সুবোধ ঘোষ(১৯০৯-৮০)[৭২] সাহিত্যিক, সাংবাদিক৤ ‘ভারত প্রেমকথা’-র লেখক৤
বিষ্ণু দে(১৯০৯-৮২)[৭৪] কবি৤
আশুতোষ ভট্টাচার্য(১৯০৯-৮৪)[৭৬] অধ্যাপক, ছৌনাচের প্রচারক৤
সুমথনাথ ঘোষ(১৯০৯-৮৪)[৭৬] সাহিত্যিক, ‘মিত্র ও ঘোষ’ প্রকাশন সংস্থা গড়েন৤
শৈল চক্রবর্তী(১৯০৯-৮৯)[৮১] চিত্রশিল্পী, সাহিত্যিক৤
ক্ষিতীন্দ্রনারায়ণ ভট্টাচার্য(১৯০৯-৯০)[৮২] শিশুসাহিত্যিক, রামধনু পত্রিকার সম্পাদক৤
আশাপূর্ণা দেবী(১৯০৯-৯৫)[৮৭] সাহিত্যিক৤
অরুণা আসফ আলি[গঙ্গোপাধ্যায়](১৯০৯-৯৬)[৮৮] দেশনেত্রী ও স্বাধীনতা সংগ্রামী৤
ফণিভূষণ মতিলাল(১৯১০-৭২)[৬৩] ছোট ফণি যত্রাশিল্পী৤
দুলালচন্দ্র মুখোপাধ্যায়(১৯১০-৭৮)[৬৯] অবধূত ‘মরুতীর্থ হিংলাজ’-এর লেখক৤
প্রমোদকুমার দাশগুপ্ত(১৯১০-৮২)[৭৩] সিপিআই(এম) দলের পঃবঃ সম্পাদক৤
রমা চৌধুরী(১৯১০-৯১)[৮২] শিক্ষাব্রতী৤
প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার(১৯১১-৩২)[২২] বিপ্লবী, সূর্য সেনের শিষ্যা, প্রধানশিক্ষিকা, গ্রেপ্তার এড়াতে পটাসিয়াম সায়ানাইড খেয়ে ২২ বছর বয়সে আত্মহত্যা করেন৤
শশীভূষণ দাতগুপ্ত(১৯১১-৬৪)[৫৪] সমালোচক, কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক৤
জ্যোতিরিন্দ্র মৈত্র(১৯১১-৭৭)[৬৭] লেখক৤
দেবব্রত বিশ্বাস(১৯১১-৮০)[৭০] জর্জ বিশ্বাস রবীন্দ্রসংগীত জনপ্রিয় করণের কাণ্ডারী৤
নীহাররঞ্জন গুপ্ত(১৯১১-৮৬)[৭৬] চিকিৎসক, লেখক৤
হাসিরাশি দেবী(১৯১১-৯৩)[৮৩] খ্যাত শিশু সাহিত্যিক৤
ভবতোষ দত্ত(১৯১১-৯৭)[৮৭] অর্থনীতিবিদ৤
সৈয়দ ওয়ালিউল্লাহ(১৯১২-৭১)[৬০] ঔপন্যাসিক, বাংলাদেশী৤
অশোককুমার সরকার(১৯১২-৮৩)[৭২] আনন্দবাজার পত্রিকার নামী সম্পাদক৤
দক্ষিণারঞ্জন বসু(১৯১২-৮৯)[৭৮] সাংবাদিক৤
কমল মিত্র(১৯১২-৯৩)[৮২] অভিনেতা৤
জ্ঞানপ্রকাশ ঘোষ(১৯১২-৯৭)[৮৬] সঙ্গীতজ্ঞ৤
প্রতুলচন্দ্র সরকার(১৯১৩-৭১)[৫৯] পি.সি.সরকার যাদু সম্রাট৤
দিনেশ দাস(১৯১৩-৮৫)[৭৩] কবি৤
কল্পনা যোশী[দত্ত](১৯১৩-৯৫)[৮৩] রাজনীতিক৤
সাধনা বসু(১৯১৪-৭৩)[৬০] নৃত্যশিল্পী, অভিনেত্রী৤
মৈত্রেয়ী দেবী(১৯১৪-৯০)[৭৭] লেখিকা, রবীন্দ্রস্নেহধন্য৤
চারু মজুমদার(১৯১৫-৭২)[৫৮] নকশাল আন্দোলনের সূচনাকার৤
অসিতবরণ(১৯১৫-৮৪)[৭০] চিত্র অভিনেতা৤
হরিনারায়ণ চট্টোপাধ্যায়(১৯১৬-৮১)[৬৬] লেখক৤
চিন্ময় লাহিড়ি(১৯১৬-৮৪)[৬৯] শাস্ত্রীয় সংগীত শিল্পী৤
বিকাশ রায়(১৯১৬-৮৭)[৭২] চলচ্চিত্রে জটিল চরিত্রের অভিনেতা৤
সমর সেন(১৯১৬-৮৭)[৭২] কবি৤
কানন দেবী(১৯১৬-৯২)[৭৭] চলচ্চিত্র অভিনেত্রী৤
নরেন্দ্রনাথ মিত্র(১৯১৭-৭৫)[৫৯] লেখক৤
কামাক্ষীপ্রসাদ চট্টোপাধ্যায়(১৯১৭-৭৬)[৬০] লেখক৤
জয়নাল আবেদিন(১৯১৭-৭৬)[৬০] প্রবাদপ্রতিম দেশখ্যাত চিত্রকর৤
বিজন ভট্টাচার্য(১৯১৭-৭৮)[৬২] নাট্যকার৤
বিনয় ঘোষ(১৯১৭-৮০)[৬৪] গবেষক লেখক৤
নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়[তারক](১৯১৮-৭০)[৫৩] সাহিত্যিক৤
রবীন মজুমদার(১৯১৮-৮৩)[৬৬] বাংলা চলচ্চিত্রের নায়ক, গায়ক৤
ইন্দ্র দুগার(১৯১৮-৮৯)[৭২] প্রখ্যাত চিত্রকর৤
সুবোধকুমার চক্রবর্তী(১৯১৮-৯২)[৭৫] ভ্রমণ সাহিত্যের লেখক৤
আবদুল হাই(১৯১৯-৬৯)[৫১] বাংলাভাষা গবেষক ও অধ্যাপক৤
সুপ্রভা সরকার(১৯১৯-৮৯)[৭১] নজরুল সংগীতের খ্যাত শিল্পী৤
মুজিবুর রহমান(১৯২০-৭৫)[৫৬] স্বাধীন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা, পরে বিদ্রোহীদের হাতে নিহত৤
রাজেশ্বরী দত্ত(১৯২০-৭৬)[৫৭] রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী৤
অখিলবন্ধু ঘোষ(১৯২০-৮৮)[৬৯] সংগীত শিল্পী৤
আশুতোষ মুখোপাধ্যায়(১৯২০-৮৯)[৭০] সাহিত্যিক, সাংবাদিক৤
হেমন্তকুমার মুখোপাধ্যায়(১৯২০-৮৯)[৭০] প্রবাদপ্রতিম গায়ক৤
বালক ব্রহ্মচারী(১৯২০-৯৩)[৭৪] বীরেন্দ্রচন্দ্র চক্রবর্তী ‘সন্তানদল’ সংগঠক৤ 

শিবদাস ঘোষ(১৯২১-৭৬)[৫৬] এসইউসি দলের প্রতিষ্ঠাতা৤
ফণীশ্বরনাথ রেণু(১৯২১-৭৭)[৫৭] ফণীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় হিন্দি ভাষায় লেখেন৤বিহারে জন্ম৤
আনন্দমূর্তিজি(১৯২১-৯০)[৭০] প্রভাতরঞ্জন সরকার আনন্দমার্গ সংঘের প্রতিষ্ঠাতা৤
সত্যজিৎ রায়(১৯২১-৯২)[৭২] আন্তর্জাতিক পুরস্কার প্রাপ্ত বিশ্বখ্যাত চলচ্চিত্রকার৤ ‘পথের পাঁচালী’, গুপী গাইন বাঘা বাইন, হিরক রাজার দেশে, চারুলতা ইত্যাদি চলচ্চিত্রের নির্মাতা৤
নির্মলেন্দু চৌধরী(১৯২২-৮১)[৬০] লোকসঙ্গীত শিল্পী৤
হরিপদ ভারতী(১৯২২-৮২)[৬১] কলেজ অধ্যক্ষ, বাগ্মী৤
বিমল মিত্র(১৯২২-৯১)[৭০] লেখক৤
শফিউর রহমান(●--১৯৫২)[] পূর্ব পাকিস্তানের ঢাকায় ১৯৫২-র ২১শে ফেব্রুয়ারি বাংলা ভাষা আন্দোলনের শহিদ৤ জন্ম হুগলি, লেখাপড়া বিবাহ কোলকাতায়৤
প্রাণতোষ ঘটক(১৯২৩-৭০)[৪৮] লেখক
মুনিরুজ্জমান(১৯২৪-৭১)[৪৮] শিক্ষাব্রতী, বাংলাদেশ মুক্তিসংগ্রামের শহিদ৤
অহিভূষণ মালিক(১৯২৪-৮৬)[৬৩] ব্যঙ্গচিত্রশিল্পী৤
সমরেশ বসু(১৯২৪-৮৮)[৬৫] লেখক৤
সতীনাথ মুখোপাধ্যায়(১৯২৪-৯২)[৬৯] গায়ক৤
সবিতাব্রত দত্ত(১৯২৪-৯৫)[৭২] গায়ক, অভিনেতা৤
তরুণকুমার ভাদুড়ি(১৯২৪-৯৬)[৭৩] সাংবাদিক ও সাহিত্যিক৤
ঋত্বিক ঘটক(১৯২৫-৭১)[৪৭] চলচ্চিত্র পরিচালক৤
মুনীর চৌধুরী(১৯২৫-৭১)[৪৭] লেখক, ‘মুনির অপটিমা’ নামক বাংলা টাইপরাইটার কিবোর্ডের নক্সাকার৤ বাংলাদেশ মুক্তিসংগ্রামের শহিদ৤
তৃপ্তি মিত্র(১৯২৫-৮৯)[৬৫] মঞ্চ ও চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী৤
সুকান্ত ভট্টাচার্য(১৯২৬-৪৭)[২২] কবি৤
রফিকউদ্দিন(১৯২৬-৫২)[২৭] একুশে ফেব্রুয়ারি ১৯৫২-র বাংলাভাষা আন্দোলনের শহিদ৤
তাজউদ্দিন আহমেদ(১৯২৬-৭৫)[৫০] স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী৤
উত্তমকুমার(১৯২৬-৮০)[৫৫] বাংলা চলচ্চিত্রের খ্যাত অভিনেতা৤
শাহিদুল্লা কায়সার(১৯২৭-৭১)[৪৫] লেখক, বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধা৤
নীলিমা সেন(১৯২৮-৯৬)[৬৯] রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী৤
কিশোরকুমার(১৯২৯-৮৭)[৬০] গায়ক ও চলচ্চিত্র অভিনেতা৤
শ্যামল মিত্র(১৯২৯-৮৭)[৬০] গায়ক৤
উৎপল দত্ত(১৯২৯-৯৩)[৬৫] মঞ্চ ও চলচ্চিত্র অভিনেতা৤
পান্নালাল ভট্টাচার্য(১৯৩০-৬৫)[৩৬] রামপ্রসাদী ও কীর্তন গায়ক৤
রফিকুল ইসলাম(●--১৯৭১)[] বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের নেতা, মুক্তিযুদ্ধে শহিদ৤
গীতা দত্ত(দৎ ?)(১৯৩১-৭১)[৪১] সুকণ্ঠী গায়িকা৤
বাহাদুর খাঁ(১৯৩১-৮৯)[৫৯] সরোদ বাদক৤
জহির রায়হান(১৯৩৩-৭২)[৪০] বাংলাদেশের বিশষ্ট লেখক ও চলচ্চিত্র পরিচালক৤ পাক ঘাতক সেনা বাহিনীর হাতে নিহত৤
অজিতেশ বন্দ্যোপাধ্যায়(১৯৩৩-৮৩)[৫১] অভিনেতা৤
শক্তি চট্টোপাধ্যায়(১৯৩৩-৯৫)[৬৩] কবি৤
জিয়াউর রহমান(১৯৩৬-৮১)[৪৬] বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সেনাপতি, পরে নির্বাচনে জয়ী হয়ে রাষ্ট্রপতি৤
আরতি সাহা(১৯৩৬-৯৪)[৫৯] ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রমকারী মহিলা সাঁতারু৤


২০০০খ্রিস্টাব্দ__ 



 



কোন মন্তব্য নেই: